এইচআইভি পুরোপুরি নির্মূলে আশাবাদ | jamunanews24.com

যমুনা নিউজ: দক্ষিণ অফ্রিকায় একটি পরিক্ষামূলক গবেষণা চালিয়ে এই...

বাংলা  
 আন্তর্জাতিক
এইচআইভি পুরোপুরি নির্মূলে আশাবাদ
Published : Thursday, 1 December, 2016 at 4:11 PM,  Read :  11  times.
এইচআইভি পুরোপুরি নির্মূলে আশাবাদযমুনা নিউজ: দক্ষিণ অফ্রিকায় একটি পরিক্ষামূলক গবেষণা চালিয়ে এইচআইভি এইডসের ভাইরাস নির্মূলে সফলতা পাওয়ার আশা করেছে যুক্তরাষ্টের একদল চিকিৎসা বিজ্ঞানী।

আলজাজিরায় প্রকাশিত একটি রিপোর্টে বলা হয়েছে, বিশ্ব এইডস দিবসকে উপলক্ষ করে বুধবার মার্কিন ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট এলার্জি অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজেস (এনভিটিএন) আনুষ্ঠানিকভাবে এইচআইভি ভাইরাস নির্মুলে আফ্রিকার এ দেশটিতে গবেষণা পরিচালনার কথা জানান।

এ দিন আনুষ্ঠানিকেভাবে দীর্ঘ ৩০ বছর সাধনার ফলে এইচআইভি ভাইরাস ধংসে টিকা তৈরিতে দারুন সফলতা পাওয়ার দাবি করেছে চিকিৎসা বিজ্ঞানীরা।

ভ্যাকসিনটি (টিকা) এইচআইভি ভাইরাস ধংসে শেষ পেরেক ঠুকে দিবে বলে দাবি বিজ্ঞানীদের।

বিজ্ঞানীরা চার বছর ধরে আফ্রিকার এই দেশটিতে ১৮ থেকে ৩৫ বছর বয়সী ৫হাজার ৪শ পুরুষ এবং নারীর মধ্যে যৌন কার্যক্রম পরিচালনার মাধ্যমে এ গবেষণা চালায়।

এসব মানুষের মধ্যে গবেষণা চালিয়ে এইচআইভি ভাইরাস ধংসে এই টিকা আবিষ্কার করতে সক্ষম হয়। যা বিশ্বের চিকিৎসা বিজ্ঞানের জন্য বিশাল সাফল্য বলে বর্ণনা করা হয়েছে। তবে এর সফলতা পেতে আরো কিছুদিন অপেক্ষা করতে হবে।

বিজ্ঞানিরা বলছেন এই টিকার মাধ্যমে মানুষের শরীরে সংক্রমিত এউচআইভি এইডস ভাইরাস ১০০ভাগ নির্মুল করা সম্ভব হবে।

প্রসঙ্গত, হিউম্যান ইমিউনোডেফিসিয়েন্সি ভাইরাসকে সংক্ষেপে বলা হয় এইচআইভি। এই রোগটি বা ভাইরাসটি যৌন-বাহিত বা সংক্রামক ব্যাধি হিসেবে পরিচিত, যা একধরণের জীবাণু।

এ জীবাণু মানুষের দেহে প্রবেশে করে শরীরের রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা  নষ্ট করে দেয়, ফলে নানা সংক্রামক রোগ ও কয়েক রকম ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে রোগী মৃত্যু মুখে ঢলে পড়ে।

১৯৮১ সালে ভাইরাসটি আবিষ্কারের পর থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত এইডস রোগের কারণে তিন কোটিরও বেশি মানুষ মারা যায়।
 
২০০৫ সালে মরণব্যাধি এইডস ২২ থেকে ৩৩ লাখ মানুষের জীবন কেড়ে নেয়, যার মধ্যে ৫ লাখ ৭০ হাজারের ও বেশি ছিল শিশু।

চিকিৎসা বিজ্ঞানীদের ধারণা আফ্রিকার প্রায় ৭ কোটি মানুষ যৌন-বাহিত এ ভাইরাসে আক্রান্ত। (সংগৃহীত)

jamunanews24.com/ S.alam/ 01 Dec. 2016

� পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ �