কূটনৈতিক সুবিধাপ্রাপ্ত বিলাসব... | jamunanews24.com

যমুনা নিউজ: কূটনৈতিক সুবিধায় আনা কোটি টাকা মূল্যের বিলাসবহুল ...

বাংলা  
 অপরাধ
কূটনৈতিক সুবিধাপ্রাপ্ত বিলাসবহুল গাড়ি জব্দ
Published : Tuesday, 29 November, 2016 at 8:32 PM,  Read :  29  times.
কূটনৈতিক সুবিধাপ্রাপ্ত বিলাসবহুল গাড়ি জব্দযমুনা নিউজ: কূটনৈতিক সুবিধায় আনা কোটি টাকা মূল্যের বিলাসবহুল একটি মিতসুবিশি গাড়ি রাজধানীর উত্তরা থেকে জব্দ করেছে শুল্ক গোয়েন্দারা। গত সোমবার গাড়িটি জব্দ করা হলেও মঙ্গলবার কাগজপত্র যাচাই-বাছাই করে দেখার পর গাড়িটি জব্দ তালিকায় দেখানো হয়।

মঙ্গলবার বিকেলে শুল্ক গোয়েন্দা অধিদফতরের মহাপরিচালক ড. মইনুল খান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উত্তরার ৪ নম্বর সেক্টরের ১৮ নম্বর রোডের আশিকুল হাসিব তারিক নামে এক ব্যক্তির বাড়ি থেকে কূটনৈতিক সুবিধায় মিতসুবিশি ব্র্যান্ডো গাড়ির ওপর নজরদারি করা হয়। গত সোমবার (২৮ অক্টোবর) গাড়িটি ওই বাড়ির গ্যারেজ থেকে তুলে আনা হয়। মঙ্গলবার কাগজপত্র যাচাই করে নিশ্চিত হয়ে গাড়িটি জব্দ তালিকায় দেখানো হয়।

শুল্ক গোয়েন্দার মহাপরিচালক বলেন, ওই বাড়ির মালিক বাসায় না থাকলেও তার স্ত্রী গাড়ির কোনো কাগজ দেখাতে পারেননি। তিনি প্রথমে শুল্ক গোয়েন্দা কর্মকর্তাদের সঙ্গে অসহযোগিতামূলক আচরণ করেন। তবে তিনি মৌখিকভাবে স্বীকার করেন যে, গাড়িটি শুল্কমুক্ত সুবিধায় আনা এবং তারা প্রিভিলেজড ব্যক্তির কাছ থেকে ক্রয় করেছেন। গাড়িটি ইনকাম ট্যাক্স ফাইলে দেখানোর চেষ্টা করা হচ্ছে।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানা যায়, গাড়িটি বিশেষ সুবিধায় শুল্কমুক্তভাবে আমদানিকার করে ওই ব্যক্তির কাছে বিক্রি করে দেওয়া হয়। জব্দের সময় গাড়িটিতে হলুদ রেজিস্ট্রেশন প্লেট পাওয়া গেছে। হলুদ নম্বর প্লেট সম্বলিত গাড়ি শুধু প্রিভিলেজড পারসন ব্যবহার করতে পারেন।

কাগজপত্র যাচাই করে দেখা যায়, শুল্কমুক্ত হিসেবে ছাড় করা গাড়ি বিক্রি না করার শর্ত থাকলেও তা পরিপালন করা হয়নি।

গোয়েন্দারা জানতে পেরেছেন, গাড়িটি ইউএনডিপির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা স্টিফেন প্রিসনার শুল্কমুক্ত সুবিধায় এনেছিলেন। তিনি অনুমতি না নিয়ে এবং শুল্ক পরিশোধ ব্যতিরেকে অন্যের কাছে হস্তান্তর করেন। এক্ষেত্রে তিনি শুল্কমুক্ত সুবিধার অপব্যবহার করে শুল্ক আইন ভঙ্গ করেছেন। তিনি অবৈধভাবে গাড়ি হস্তান্তর করে এরইমধ্যে দেশ ত্যাগ করেছেন। এখন ইউএনডিপির আবাসিক প্রতিনিধির সঙ্গে যোগাযোগ করে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

একইভাবে শুল্ক পরিশোধ না করে বর্তমান ব্যবহারকারী আশিক আইন ভঙ্গ করেছেন। হলুদ প্লেটের পদাধিকার না থাকলেও তিনি এটি ব্যবহার করায় তিনি অসাধুতার আশ্রয় নিয়েছেন। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, আমদানিকারক ওই ব্যক্তি ইউএনডিপির প্রাক্তন স্থানীয় স্টাফ ছিলেন। তবে তিনি প্রিভিলেজড পারসনের সুবিধাপ্রাপ্ত নন।

গাড়ি যাচাই করে দেখা যায়, চ্যাসিস নং V46-4028766, ইঞ্জিন 4M40, মডেল Y-V46WG NXF 1। গাড়ির ইঞ্জিন নং সিসি 2835। গাড়ির হলুদ নম্বর প্লেট এজস০৫৯। গাড়িটির আনুমানিক বাজার মূল্য ১ কোটি টাকা।

এ ব্যাপারে দি কাস্টমস অ্যাক্ট, ১৯৬৯ এর সংশ্লিষ্ট ধারা অনুযায়ী আইনানুগ প্রক্রিয়া গ্রহণ করা হয়েছে।

jamunanews24.com/jisan/momin/Roushan/29 November 2016

� পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ �